সংবাদ শিরোনাম
নবীগঞ্জের রুস্তমপুর টোলপ্লাজা এলাকায় থেকে ৩ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের হাতে গ্রেফতার  » «   ছাতকে বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে কন্ঠশিল্পী পাগল হাসান নিহত  » «   সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে মায়ের সম্পত্তি নিয়ে ছোটভাইয়ের হাতে বড়ভাই নিহত,আটক-২  » «   দিরাইয়ে বজ্রপাতে দুইজন কৃষকের মৃত্যু  » «   পরিবেশ অধিদপ্তরের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহবান  » «   সিলেট জেলা ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা সভা  » «   ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র সভাপতি শেখ লুৎফুর  » «   পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসীর মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক ও সমন্বয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ  » «   মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   সুনামগঞ্জে কালবৈশাখীর ঝড়ে ৭শতাধিক কাচা ঘরবাড়ি,২ শতাধিক দোকান লন্ডভন্ড  » «   হবিগঞ্জে চাল্যকর ছোবহান হত্যা মামলার ৫ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯  » «   নবীগঞ্জে ৬ বছরে শিশুকে চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ! ধর্ষনকারী আনহারকে আটক   » «   ফ্যাসিস্ট ডামি সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট জেলার উদ্যোগে ইফতার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল  » «   সিলেটে পারিবারিক কলহের জেরে ছেলের হাতে বাবা খুন  » «  

কাশিয়ানীতে দিনরাত একাকার করে চলছে মাড়াই

0003সিলেটপোস্ট ডেস্ক:   গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর দিগন্ত বিস্তৃত মাঠে যেদিকে চোখ যায়, সেদিকেই সবুজের মাঝে সোনালি ঝিলিক। এই ঝিলিকে কৃষকের চোখ-মুখও উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে। কাকডাকা ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ চলছে। উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রসময় ম-ল জানান, উপজেলার ১২৮৩৫ হেক্টর জমিতে এ বছর বিভিন্ন জাতেরহয়েছে। অথচ আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১২৬৬৫ হেক্টর। ফলনের লক্ষ্যমাত্রাও অতিক্রম করবে বলে তারা ধারণা করছেন। আর পনের দিন যদি শিলাবৃষ্টি বা বড় ধরনের ঝড় না হয়, তবে কৃষকরা নিশ্চিন্তে সব ধান ঘরে তুলতে পারবেন। কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নিম্নাঞ্চলে এ বছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অনেক বেশি ধানের চাষ ও ফলন হয়েছে। উপজেলায় এ বছর ৬০ হাজার মেট্রিক টন ধানের চাহিদা থাকলেও ফলন হবে ১ লাখ ১৫ টন। অথাৎ চাহিদার চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ ফলন হয়েছে। উপজেলার অনেক কৃষক ক্ষেতের পাশের উঁচু জমিতে ধান মাড়াইয়ের খইলান তৈরি করেছেন। ধান কেটে এনে সেখানেই চলছে ঝাড়াই-মাড়াইয়ের কাজ। পরে তোলা হচ্ছে মালিকের গোলায়। আবার যেসব ক্ষেতের কাছাকাছি রাস্তা আছে সেসব জমির মালিকরা ধান কেটে নসিমন বা ভ্যান করে বাড়িতে নিয়ে যাচ্ছেন।

সমানে চলছে ধান মাড়াই ও ঝাড়াইয়ের কাজ। কৃষাণ-কৃষাণিরা ধান কাটা-মাড়াই ও গোলায় উঠাতে কোমর বেঁধে কাজে নেমেছেন। প্রায় ১৫ দিন আগে থেকে উপজেলায় ধান কাটার ধুম লেগেছে। তাই কৃষকের চোখে মুখে সোনালি হাসির ঝিলিক লেগেছে

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.