সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী যারা  » «   শিক্ষার্থীরা উচ্চ শিক্ষা অর্জন করতে পারলে তাদের ভবিষ্যৎ উজ্জল হবে-প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান  » «   নবীগঞ্জে বাস- সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১-আহত ৫  » «   নবীগঞ্জে আগুনে পুড়ে ১টি বসত ঘর ছাই! প্রায় ২ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি  » «   সিলেটে হিটস্ট্রোকে শফিকুল ইসলাম নামে এক পথচারি মারা গেছেন  » «   সাংবাদিকের উপর হামলা: চেয়ারম্যান কারাগারে  » «   সিলেটে এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার ৮৩ দশমিক ৮৮ শতাংশ  » «   সুনামগঞ্জের ডলুরায় ব্যবসায়ীর উপর হামলার ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তিন জন  » «   তিন দিনের সফরে সিলেট আসছেন প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «   সিসিকের হোল্ডিং ট্যাক্স সাধারণ মানুষের উপর ‘মরার উপর খাড়ার ঘা’-সিলেট জেলা বিএনপির   » «   প্রেমের টানে চলে আসা দুই সন্তানের জননী খাসিয়া নারীকে ভারতে ফেরত  » «   সিলেটে বিএনপির আরো ১৫ নেতা-নেত্রী বহিস্কার  » «   হুট করেই ছুটি বাতিল করায় পক্ষে বিপক্ষে শনিবারের ক্লাস নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।  » «   মহান মে দিবসে সিলেট সদর উপজেলা বিল্ডিং নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের র‌্যালি  » «   উত্তরপূর্ব পত্রিকার কম্পিউটার ইনচার্জে রলাশ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের  » «  

ভেড়ামারায় বৃদ্ধা মাতা কে পেটালো কুলাঙ্গার সন্তান

37সিলেট পোষ্ট রিপোর্ট : কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় অসহায় বৃদ্ধ মাতা কে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করেছে তারই কুলাঙ্গার সন্তান মনিরুল ইসলাম ওরফে সাপু। বৃদ্ধ মাতা তহুরা বেগম (৬০) বর্তমানে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র বেডে শুয়ে মৃত্যু যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে। সে ভেড়ামারার ফারাকপুর গ্রামের আমির হোসেন’র স্ত্রী। এ বিষয়ে ভেড়ামারা থানায় লিখিত করা হয়েছে। তবে এখনো গ্রেফতার হয়নি ওই কুলাঙ্গার সন্তান মনিরুল। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে ভেড়ামারার ফারাকপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

 

লিখিত অভিযোগে জানা গেছে,  বৃদ্ধ মাতা তহুরা বেগম পাশের একটি বাড়িতে এক রুগীকে ড্রেসিং করাতে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে তারই কুলাঙ্গার পুত্র মনিরুল ইসলাম সাপু এবং তার স্ত্রী নাজমা খাতুন পূর্ব শুত্রুতার জের ধরে তার গতিরোধ করে রাতের অন্ধকারে হত্যার উদ্দ্যেশে বেধড়ক মারপিট শুরু করে।

তাদের হাতে থাকা বাটাম দিয়ে বৃদ্ধ মাতার হাতের বাহু, কনুই’র নীচে মাজায়, হাটুতে বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত, ফোলা কালশীরা জখম করে। এসময় তার গলায় থাকা একটি সোনার চেইনও ছিনিয়ে নিয়ে যায় ওই কুলাঙ্গার। আচমকা আক্রমনের ফলে হতভম্ব হয়ে পড়ে বৃদ্ধ মাতা তহুরা বেগম। পরে তার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

বর্তমানে বৃদ্ধ মাতা এখন হাসপাতালের বেডে মৃত্যু যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে। এ বিষয়ে ভেড়ামারা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলেও এখন গ্রেফতার হয়নি ওই কুলাঙ্গার পুত্র সাপু এবং তার স্ত্রী নাজমা খাতুন। বৃদ্ধ মাতা তহুরা বেগম উপর হামলাকারী ওই কুলাঙ্গারদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবী করেছে স্থানীয়রা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.