সংবাদ শিরোনাম
আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ চলাকালে সিয়াম নামে এক তরুণ নিহত  » «   কোটা বৈষম্য বিরোধী আন্দোলনকারীদের পক্ষে বিক্ষোভের ঘোষণা হেফাজতে ইসলামের  » «   আগামীকাল সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’কর্মসূচি ঘোষণা  » «   দোয়ারাবাজারে প্রকাশ্যে চলছে টিলা কাটার মহোৎসব! নিরব প্রশাসন  » «   মাদকের ভয়ালগ্রাস থেকে আমাদের সন্তানদের বাচাতে হবে- বিভাগীয় কমিশনার আহমদ ছিদ্দীকী  » «   আরিফ হত্যা মামলায় ৩৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিপু কারাগারে  » «   ধর্মপাশার মুগরাইন হাওরে গোসল করতে নেমে ডুবে শাশুড়ি ও তার অন্তঃসত্ত্বা পুত্রবধূর মৃত্য  » «   তৃতীয় দফা বন্যার মুখোমুখি সুনামগঞ্জের হাওরপাড়ের লাখ লাখ মানুষজন  » «   বন্যায়ও থেমে নেই ভারত থেকে অবৈধভাবে আসা চিনির চোরাচালান  » «   সিলেটে নতুন পুলিশ সুপার এর যোগদান  » «   র‌্যাব সদস্যরা দেশের যেকোন সংকটময় মূহুূর্তে সব সময়ই জনগনের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে -র‌্যাব মহাপরিচালক  » «   সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার জন্য একজন গানম্যান নিয়োগ পেলেন ব্যারিস্টার সুমন  » «   গুজব আতঙ্কে গোলাপগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ  » «   সুনামগঞ্জে শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত  » «   কৃষকরা এ দেশের প্রাণ: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «  

ওসমানীনগরে ধর্ষিতা কিশোরীর সন্তান প্রসব, ৪ মাসেও গ্রেফতার হয়নি ধর্ষক!

ওসমানীনগর(সিলেট)প্রতিনিধি : সিলেটের ওসমানীনগরে ১৭ বছরের তরুনীর সন্তান প্রসবকে কেন্দ্র করে উপজেলা জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে আলোচনা-সমালোচনা। বিয়ের আগেই ধর্ষণ কান্ডে সন্তান প্রসবের পর পিতার স্বীকৃতি পেতে অভিযুক্ত যুবকের বাড়িতে দেড় মাসের শিশুসন্তান নিয়ে ১৫ ঘন্টা অনশন করেও কোন সুরাহা হয়নি। পুলিশ আবারও ধর্ষিতাকে তার বাবার বাড়িতে ফিরিয়ে দিয়েছে। আলোচিত এই ঘটনায় মামলা দায়ের করলেও ৪ মাসে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

জানা গেছে, গত ২৩ জুলাই সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন ধর্ষণ হওয়া কিশোরী। গত বৃহস্পতিবার স্ত্রী ও সন্তানের স্বীকৃতির দাবিতে ধর্ষকের বাড়িতে উঠেন কিশোরী। সকাল ৯ টা থেকে রাত ১২ পর্যন্ত ওই বাড়িতে অবস্থান নিলেও ঘরের কেউ দরজা না খোলায় আকুতি মিনতে করেও স্ত্রীর মর্যাদা না পেলে আত্মহত্যার হুমকিও দেন কিশোরী। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে অভিযুক্তের পরিবারের লোকজনদের সাথে কথা বলতে না পেরে তরুনীর সাথে আলোচনা করে মধ্য রাতে শিশু সন্তানসহ তাকে বাবার বাড়িতে ফেরেত পাঠায় পুলিশ।

আজ শনিবার সকালে সরজমিনে কিশোরীর বাবার বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে শিশু সন্তান নিয়ে একটি ঘরে বসে আছেন কিশোরী। বর্তমানে শিশু সন্তানসহ বাবার বাড়িতে থাকলেও ধর্ষক সজু গ্রেফতার না হওয়া, প্রভাবশালীদের চাপ ও সামাজিক ভাবে হেও প্রতিপন্ন হওয়ার কথা জানিয়ে ভুক্তভোগী তরুনী বলেন, আমি আমার ছেলের পিতৃ পরিচয় চাই।

মামলা সূত্রে জানায়, গত বছরের ২০ অক্টোবরে ভোরে কিশোরী পূজার ফুল তুলতে গিয়ে নিজ বুরুঙ্গা গ্রামের রাখাল দেবের ছেলে সজু কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়। পরবর্তীতে বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে একাধিকবার ধর্ষণ করে সজু। একপর্যায়ে কিশোরী শারিরীক পরিবর্তন হয়ে বিষয়টি জানাজানি হয়। সজুর পক্ষ হয়ে ইউপি সদস্য দীপংকর দেব নগদ ৫ লক্ষ টাকার বিনিময়ে কথিত ডাক্তার বাসু দেবের মাধ্যমে অনাগত সন্তানের গর্ভপাত ঘটিয়ে বিষয়টি মিমাংসার জন্য চাঁপ প্রয়োগ করেন। এই বিষয়ে পঞ্চায়েতের লোকজন সালিশে বসলে নির্ধারতি দিনে ইউপি সদস্যসহ সজুর পরিবারের কেউ উপস্থিত হননি। পরে ২মে থানায় সজুকে আসামী করে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করেন কিশোরীর পিতা। চার দিন পর রাতে মামলার বাদিকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কথিত ডাক্তার বাসু দাশের চেম্বারে আটকে রাখা হয়। বাসু দাশসহ অভিযুক্ত সজুর ভাই রঞ্জু দেব, দিপংকর দেব ৫ লক্ষ টাকা প্রদানের মাধ্যমে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার ও কিশোরীর গর্ভপাত করাতে চাপ সৃষ্টি করেন। এই ঘটনা থানা পুলিশকে জানালে পুলিশের পরামর্শক্রমে তিনদিন পর নিজের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেন নির্যাতিতার পিতা।

অন্যদিকে, ঘটনার সুষ্ঠ বিচারের দাবিতে চলতি বছরের ১৯ জুন ওসমানীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে অভিযুক্তকে গ্রেফতার পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়ে ছিলেন নির্যাতিতার পরিবার।

মামলার বাদি কিশোরীর পিতা জানান, ৫ লক্ষ টাকার বিনিময়ে গর্ভপাত করাতে নানা কৌশল অবলম্বন করে ব্যর্থ হয় সজু। পরে মামলা দায়ের করলেও পুলিশ আসামীকে গ্রেফতার করছে না। আমার মেয়ে অভিযুক্তের বাড়িতে অনশনে গেলে পুলিশ তাকে আমার বাড়িতে ফিরিয়ে দিয়ে গেছে।

ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনচার্য (ওসি) মাসুদুল আমিন বলেন, শিশুসহ মেয়েটি বর্তমানে তার বাবার বাড়িতে রয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.