সংবাদ শিরোনাম
ওসমানীনগরে বন্যা আশ্রয়কেন্দ্রে ২শতাধিক বাসিন্দা উপজেলা প্রশাসনের তালিকায় মাত্র ৪৩জন  » «   ওসমানীনগরে কুশিয়ারা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন ঝুঁকিতে ড্রাইক ও গ্রাম  » «   সিলেটের বিভিন্ন স্থান থেকে চোরাই মোবাইল সিন্ডিকেটের ৬ জন সদস্য র‌্যাব-৯ এর হাতে গ্রেফতার  » «   করিম উল্লাহ মার্কেট থেকে বিপুল পরিমাণ মোবাইলসহ ৬ জন গ্রেফতার  » «   ঈদকে সামনে রেখে নবীগঞ্জে জমে উঠেছে জমজমাট পশুর হাট!  » «   শিশুদের সুপ্ত মেধা বিকাশে প্রতিযোগিতা আয়োজনের বিকল্প নেই: শেখ রাসেল হাসান  » «   মেজরটিলায় টিলা ধসে হতাহতের ঘটনায় সিলেট মহানগর বিএনপির শোক  » «   দেশের স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে শহীদ জিয়া দূরদর্শী অবদান রেখেছিলেন-অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ  » «   ডামি সরকারের ডামি বাজেট জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে-বিএনপি  » «   গোয়ালাবাজার থেকে খাদিম পুর রোডের রাস্তার দুই পাশে গাছ হেলে পড়ায় দুর্ঘটনার আশঙ্কা  » «   আলোকিত দেশ গড়তে শিক্ষার্থীদেরকে আদর্শবান হতে হবে: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «   মরহুম প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে সিলেট মহানগর বিএনপির খাদ্য বিতরণ  » «   ইতিহাস বিকৃত করে মানুষের হৃদয় থেকে শহীদ জিয়ার নাম মুছে ফেলা যাবে না  » «   নবীগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে নাশকতা ও হয়রানির শেষ কোথায়? সচেতন মহলের প্রশ্ন  » «   উচ্চহারের হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিল ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে সিলেটের নাগরিক বৃন্দের আনুষ্টানিক বক্তব্যঃ  » «  

`রাতভর গাড়ি চালিয়ে সালাহউদ্দিনকে শিলং নেয়া হয়’

yyyসিলেটপোস্ট রিপোর্ট: বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমেদকে রাতভর গাড়ি চালিয়ে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলংয়ে ফেলে রেখে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছেন মেঘালয়ের শিলং টাইমসের সম্পাদক মানস চৌধুরী। এদিকে সালাহউদ্দিন আহমেদ শিলংয়ে নিজেই পুলিশের কাছে যান বলে দাবি করেছেন তার এক আত্মীয়। গত

বৃহস্পতিবার বিকেলে শিলং সিভিল হাসপাতালে সালাহউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করে বেরিয়ে এই তথ্য দেন কলকাতার অধিবাসী এবং সালাহউদ্দিনের দূর সম্পর্কের ভাই আইয়ুব আলী। বিবিসি জানিয়েছে, গতকাল বৃহস্পতিবার দুজন আত্মীয় সালাহউদ্দিনের সাথে দেখা করেন। : ওই আত্মীয়রা জানান, সালাহউদ্দিন আহমেদ তাদের জানিয়েছেন, তাকে চোখ বাঁধা অব¯’ায় বারবার গাড়ি বদল করে শিলং নিয়ে যাওয়া হয়। চোখ বাঁধা অব¯’াতেই তাকে শিলংয়ের গলফ লিংক এলাকায় গাড়ি থেকে নামিয়ে দেয়া হয়। চোখের বাঁধন খোলার পর তিনি বুঝতে পারছিলেন না যে কোথায় আছেন। পরে ’ানীয়দের জিজ্ঞাসা করে জানতে পারেন তিনি ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলংয়ে আছেন। এই দুই আত্মীয় আরো জানান, এরপর সালাহউদ্দিন আহমেদ শিলং পুলিশের কাছে গিয়ে নিজের পরিচয় দেন। তবে গত দুইদিন ধরে শিলংয়ের পুলিশের পক্ক থেকে বারবার দাবি করা হয়েছিল এবং শিলংয়ের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়েছিল যে, শিলংয়ের রাস্তায় সালাহউদ্দিন আহমেদকে উদভ্রান্তের মতো ঘুরতে দেখে ¯’ানীয় লোকজন থানায় খবর দেয়। এরপর পুলিশ তাকে সেখান থেকে প্রথমে শিলং সিভিল হাসপাতাল ও পরে মিমহ্যানস হাসপাতালে নিয়ে যায়। সোমবার খুঁজে পাওয়ার পর থেকেই শিলং পুলিশ বিএনপির এই নেতাকে কঠোর নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে রেখেছে। এমনকি যেসব ডাক্তার, নার্স সালাহউদ্দিন আহমেদের চিকিৎসা করছেন, তারাও স্বাস্ত’্য তথ্য ছাড়া অন্য কোন বিষয়ে কোনো কথা বলছেন না। শিলংয়ের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ডি জে গোস্বামী জানিয়েছেন, সালাহউদ্দিন আহমেদের কাছে কিছু ওষুধ পাওয়া গিয়েছিল, যেগুলো বাংলাদেশের কোনো ওষুধ কোম্পানির তৈরি বলে ধারণা করা হ”েছ। কারণ এসব ওষুধের পাতায় বাংলা লেখা ছিল। ভারতে তৈরি ওষুধের পাতায় বাংলা লেখা থাকে না। ডাক্তার ডি জে গোস্বামী আরো জানান, সালাহউদ্দিন আহমেদ হৃদরোগে এবং প্রোস্টেটের জটিলতায় ভুগছেন। তার সঙ্গে পাওয়া ওষুধগুলো মূলত এসব রোগের। : ৬৩ দিন নিখোঁজ থাকার পর খুঁজে পাওয়া বিএনপির এই নেতার সঙ্গে দেখা করতে বাংলাদেশ থেকে তার পরিবারের কয়েকজন সদস্য আজ শিলংয়ে পৌঁছান। এদের মধ্যে সালাহউদ্দিনের এক ভাই হুমায়ুন রশিদ জানিয়েছেন, সালাহউদ্দিন আহমেদের সঙ্গে তাদেরকে দেখা করার অনুমতি দিয়েছিলেন শিলং পুলিশের এসপি। কিš‘ পরে সেই অনুমতি প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। দেখা করতে না পেরে ফিরে যান তারা। এ ছাড়া আবদুল লতিফ জনি এবং স্বপন নামে বিএনপির দুজন নেতাও বাংলাদেশ থেকে শিলংয়ে গেছেন বলে জানিয়েছে বিবিসি। : সালাহ উদ্দিনকে দেশে পাঠাতে ইন্টারপোলের নোটিশ : ভারতের মেঘালয়ের শিলংয়ে উদ্ধার হওয়া বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদকে গ্রেফতার করে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছে ইন্টারপোলের ঢাকা অফিস। ভারতীয় পুলিশকে এ বিষয়ে একটি ‘রেড নোটিশ’ পাঠানো হয়েছে বলে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কলকাতার ইংরেজি দৈনিক টেলিগ্রাফ। গত সোমবার মেঘালয়ের শিলংয়ে উদভ্রান্তের মতো একটি লোককে ঘুরতে দেখে ¯’ানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে ৫৪ বছর বয়সী ব্যক্তিকে আটক করলে তিনি নিজেকে সালাহউদ্দিন আহমেদ এবং বাংলাদেশী নাগরিক পরিচয় দেন। এ সময় তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সময়কার প্রতিমন্ত্রী ও বর্তমানে দলটির যুগ্ম মহাসচিব দাবি করেন। এরপর শিলং পুলিশ তাকে একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। মঙ্গলবার শিলং সিভিল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সালাহউদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথাও বলেছেন। তিনি বলেছেন, ‘দেশে তিনি অপহরণের শিকার হন। তবে কিভাবে শিলংয়ে এসেছেন তা তিনি জানেন না।’ : বিএনপির এই নেতার পরিবার অবশ্য দাবি করে আসছে, গত ১০ মার্চ উত্তরার একটি বাসা থেকে আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর থেকে সালাহউদ্দিন আহমেদ নিখোঁজ ছিলেন। শিলংয়ে সালাহউদ্দিন আহমেদের পরিচয় শনাক্তের বৈধ কোনো কাগজপত্র পাওয়া যায়নি। পর্যটন ভিসাও নেই। এজন্য মেঘালয় পুলিশ তাকে ফরেনার্স অ্যাক্টে গ্রেফতার করেছে। মেঘালয় পুলিশের মহাপরিচালক রাজীব মেহতা টেলিগ্রাফকে বলেছেন, ‘সালাহউদ্দিনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি ফৌজদারি মামলা থাকার কথা জানিয়ে ইন্টারপোলের ঢাকা ইউনিট থেকে ওই অনুরোধ পাঠানো হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা গত বুধবার ভারতের সিবিআইয়ের মাধ্যমে ওই নোটিশ হাতে পেয়েছি। আমরা ইতোমধ্যে সিবিআইকে আমাদের উত্তর দিয়েছি।’ যদিও মেঘালয় সরকার বলছে, এখন পর্যন্ত তারা সরকারিভাবে সালাহউদ্দিন আহমেদের পরিচয় নিশ্চিত হতে পারেনি। তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে রাখা হয়েছে। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। পূর্ব খাসি পাহাড়ের পুলিশের সুপারিনটেন্ডেন্ট এম খারক্যাং বলেছেন, ‘সরকারিভাবে তার পরিচয় নিশ্চিত করা হয়নি। তবে আমরা হাসপাতাল থেকে তার ছাড়পত্রের জন্য অপো করছি। সেটি পেলেই জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করা হবে।’ হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর সালাহউদ্দিন আহমেদকে আদালতে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি। : এদিকে সালাহউদ্দিন আহমেদের স্ত্রী ও সাবেক এমপি হাসিনা আহমেদ ভিসার জন্য ঢাকার ভারতীয় দূতাবাসে আবেদন করেছেন। সেটি পেলে তিনি যত দ্রুত সম্ভব শিলং যাবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। শিলং পুলিশ জানিয়েছে, সালাহউদ্দিন আহমেদ দাবি করেছেন তাকে দেশে অপহরণ করা হয়েছিল। তবে তিনি কিভাবে এবং কার মাধ্যমে ভারতের শিলংয়ে পৌঁছালেন, তা এক বড় প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে। শিলং সিভিল হাসপাতালের কার্ডিওলজিস্ট ডা. ডি জে গোস্বামী সালাহউদ্দিনের চিকিৎসার তত্ত্বাবধান করছেন। তিনি বলেছেন, ‘শারীরিক ও মানসিক দিকে দিয়ে সালাহউদ্দিন আহমেদ ¯ি’তিশীল রয়েছেন। আরো কিছু পরীার ফল হাতে পেলে তার শারীরিক অবস্তা জানা যাবে।’ ডা. গোস্বামী বলেন, ‘আমি তার অনেকগুলো পরীা করতে দিয়েছি। বিশেষ করে যখন তিনি আমাকে তার কিডনি ও হৃদরোগের কথা বলছিলেন। সেই পরীাগুলোর রিপোর্টের জন্য অপো করছি।’ সালাহউদ্দিন আহমেদ শারীরিক ও মানসিকভাবে সু¯’-এমন সš‘ষ্টির পরই হাসপাতাল কর্তৃপ তাকে ছাড়পত্র দিবেন বলেও জানান তিনি। : সালাহউদ্দিনকে দুই ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ : বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছেন ভারতের মেঘালয় রাজ্যের শিলংয়ের পুলিশ কর্মকর্তারা। গত বৃহস্পতিবার শিলং সিভিল হাসপাতালে কারাবন্দীদের জন্য নির্ধারিত সেলে চিকিৎসাধীন সালাহউদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। : দুপুরে মেঘালয় পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের দুজন কর্মকর্তা হাসপাতালের প্রিজন ওয়ার্ডে প্রায় দুই ঘন্টা ধরে সালাহউদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন বলে জানিয়েছে বিবিসি। তবে জিজ্ঞাসাবাদে তারা কী জানতে পেরেছেন তা গণমাধ্যমের কাছে প্রকাশ করেননি। : এর আগে মেঘালয় পুলিশ জানায়, সালাহউদ্দিন আহমেদের ব্যাপারে তারা ইন্টারপোলের কাছ থেকে একটি ‘লাল নোটিশ’ পেয়েছে। এছাড়া সালাহউদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি ফৌজদারি মামলা আছে। এর মধ্যে কয়েকটি মামলায় পুলিশের খাতায় তিনি পলাতক আসামি হিসেবে চিহ্নিত। : কিডনিতে পাথর : সালাহউদ্দিন আহমেদের কিডনিতে পাথর জমেছে বলে জানিয়েছেন শিলংয়ের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ডি জে গোস্বামী। তিনি টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেন, ‘আমরা রোগীর কিছু পরীা নিরীা করেছি। আমার মনে হয়, তার কিডনিতে পাথরের চিকিৎসার জন্য আমাদের একজন সার্জনের (শল্য চিকিৎসক) পরামর্শ নিতে হবে।’ : গত ১০ মার্চ থেকে ‘নিখোঁজ ছিলেন’ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ। তাকে আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে তার পরিবার ও দলটির প থেকে দাবি করা হ”েছ। তবে সালাহউদ্দিন আহমেদকে আটক করা হয়নি বলে দাবি করে আসছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.