সংবাদ শিরোনাম
ছাতকে দু`পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ আহত অর্ধশতাধিক, আটক-১২  » «   ফেসবুকে প্রেম করে ছাত্র মামুনকে বিয়ে করে সুখের সংসার গড়া সেই শিক্ষিকার লাশ উদ্ধার  » «   আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণে অনিয়ম: ঘটনা টের পেয়ে রাতের আধারেই ঘরগুলো ভাঙ্গলো প্রশাসন   » «   আউশকান্দিতে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে আগ্নেয়াস্ত্র সহ ৫ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ  » «   আওয়ামীলীগের লুটপাটের কারনে দেশে দুর্ভিক্ষ চলছে-সিলেট মহানগর বিএনপি  » «   এডিশন্যাল ডি আই জি কে জেলা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের বিদায় সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট প্রদান  » «   আউশকান্দি কলেজিয়েট স্কুলে বখাটেদের উৎপাত বেড়ে গেছে!ছাত্রী ও অভিভাবকরা আতংকিত  » «   সুনামগঞ্জ জেলা ও দিরাই উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে দুদকে ঘুষ-দূর্নীতি ও অর্থ কেলেংকারীর অভিযোগ   » «   মাস খানেক পরই বিদ্যুৎ ঘাটতিসহ সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে-পরিকল্পনা মন্ত্রী মান্নান  » «   ওসমানীনগরে পরিমাপে পেট্রোল কম দেয়ায় সুপ্রীম ও আবীর ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা  » «   জগন্নাথপুরে এক কৃষক হত্যা মামলায় ১ জনের আমৃত্যু ও ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «  

ঢাকা টেস্ট : জয়ের জন্য ৯ উইকেটে চাই ৪৮৭

13সিলেটপোস্ট রিপোর্ট : পাকিস্তানের বিপক্ষে ঢাকা টেস্ট বাঁচাতে লড়ছে বাংলাদেশ। ম্যাচ বাঁচাতে দ্বিতীয় ও টেস্টের শেষ দুটি দিন কাটিয়ে দিতে হবে বাংলাদেশকে। শুক্রবার তৃতীয় দিনের খেলা শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৬৩ রান। জয়ের জন্য এখনো ৪৮৭ রান চাই স্বাগতিকদের। তামিম ইকবাল ৩২ ও মুমিনুল হক ১৫ রানে ব্যাট করছেন।

৬ উইকেটে ১৯৫ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে পাকিস্তান। প্রথম ইনিংসে ৩৫৪ রানে পিছিয়ে থাকায় জয়ের জন্য বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৫৫০ রান।

বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইমরুল কায়েসের সঙ্গে ৪৮ রানের জুটি গড়েন তামিম। প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ইমরুল লেগস্পিনার ইয়াসির শাহর বলে বোল্ড হলে ভাঙে ১১.১ ওভার স্থায়ী জুটি।

দুই সেশনেরও কম সময়ে ২০৩ রানে অলআউট হয়ে যাওয়া বাংলাদেশকে ফলোঅন করায়নি ৮ উইকেটে ৫৫৭ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করা পাকিস্তান।

শুরুতেই আঘাত হানেন মোহাম্মদ শহীদ। প্রথম ওভারেই মোহাম্মদ হাফিজকে ফিরিয়ে দেন তিনি। পরে অন্য উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সামি আসলামকেও বিদায় করেন দারুণ বল করা শহীদ।

প্রথম ইনিংসে দ্বিশতক করা আজহার আলিকে ফিরিয়ে নিজের প্রথম টেস্ট উইকেট নেন সৌম্য সরকার। ৪৯ রানে প্রথম তিন ব্যাটসম্যানকে হারানো পাকিস্তান শতরান পার হয় ইউনুস খান ও মিসবাহ-উল-হকের দৃঢ়তায়।

তাইজুল ইসলাম ফিরতি ক্যাচ নিয়ে ইউনুসকে বিদায় করার পর আসাদ শফিককে বোল্ড করেন শুভাগত হোম চৌধুরী। তবে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন মিসবাহ। তাইজুল ইসলামের এক ওভারে ২১ রান নেন পাকিস্তানের অধিনায়ক।

মাহমুদউল্লাহর বলে সীমানায় বদলি ফিল্ডার আবুল হাসানের ক্যাচে পরিণত হওয়ার আগে ৮২ রান করেন মিসবাহ। তার ৭২ বলের অধিনায়কোচিত ইনিংসটি গড়া ৯টি চার ও ৩টি ছক্কায়।

এর আগে শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৫ উইকেটে ১০৭ রান নিয়ে খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। তৃতীয় দিনের শুরু থেকেই বাউন্সার দিয়ে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের চাপে রাখেন ওয়াহাব রিয়াজ।

ভালো বোলিংয়ের পুরস্কার ওয়াহাব পেয়ে যেতে পারতেন প্রথম ওভারেই। ক্যাচ দিয়েও সেবার কোনোমতে বেঁচে যান সাকিব আল হাসান। তবে ওয়াহাবকে ঠেকাতে পারেননি সৌম্য ও শুভাগত।

সৌম্য শর্ট কাভারে আজহারকে ও শুভাগত গালিতে শফিককে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান। ওয়াহাবের হ্যাটট্রিক ঠেকিয়ে দেওয়া তাইজুলকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন সাকিব।

সৌম্য-শুভাগতর বিদায়ের পর সব বলেই মেরে খেলার চেষ্টা করেন সাকিব। নয় নম্বর ব্যাটসম্যান তাইজুলকে শুরুতে স্ট্রাইক দিতে চাননি তিনি। ব্যবধান কমানোর দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেওয়া সাকিব বোল্ড হয়ে যান ওয়াহাবের বলে। তবে ‘নো’ বলের কল্যাণে বেঁচে যান তিনি।

ওয়াহাবকে আক্রমণ থেকে সরিয়ে নেওয়ার পর সাকিব স্ট্রাইক দেন তাইজুলকে। ফলোঅন এড়ানোর চেষ্টা বা বড় জুটি গড়ার চেষ্টা না করে মেরে খেলে আউট হয়ে যান তিনি।

হাঁটুর চোটের কারণে ঢাকা টেস্ট শেষ হয়ে যাওয়ায় ব্যাটিং করেননি শাহাদাত। তাই শহীদ ছিলেন স্বাগতিকদের শেষ ব্যাটসম্যান। তিনি ক্রিজে আসার পর চার-ছক্কা হাঁকিয়ে দ্রুত রান সংগ্রহ করতে থাকেন সাকিব।

শহীদের সঙ্গে সাকিবের ৬৩ রানের জুটিতে দুইশ’ পার হয় বাংলাদেশের সংগ্রহ। ডিপ মিডউইকেট, ডিপ স্কয়ার লেগ ও ডিপ ফাইন লেগে ফিল্ডার রেখেও সাকিবকে ঠেকাতে পারেনি অতিথিরা। ওয়াহাবের বলে ঠিকই একের পর এক চার আদায় করে নেন বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার।

ইয়াসির শাহর দুটি ওভার কাটিয়ে দিলেও তৃতীয় ওভারটিতে আর পারেননি শহীদ। সিলি পয়েন্টে তিনি ক্যাচ দিলে শেষ হয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। সে সময় ৮৯ রানে অপরাজিত ছিলেন সাকিব। ৯১ বলে খেলা তার দুর্দান্ত ইনিংসটি ১৪টি চার ও ২টি ছক্কা সমৃদ্ধ।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

 

পাকিস্তান: ৫৫৭/৮ ডিক্লে. (হাফিজ ৮, সামি ১৯, আজহার ২২৬, ইউনুস ১৪৮, মিসবাহ ৯, শফিক ১০৭, সরফরাজ ২১*, ওয়াহাব ৪, ইয়াসির ০; তাইজুল ৩/১৭৯, শহীদ ২/৭২, শুভাগত ২/৭৬, সাকিব ১/১৩৬) ও ১৯৫/৬ ডিক্লে. (হাফিজ ০, সামি ৮, আজহার ২৫, ইউনুস ৩৯, মিসবাহ ৮২, শফিক ১৫, সরফরাজ ১৮*; শহীদ ২/২৩, মাহমুদউল্লাহ ১/৮, শুভাগত ১/১৮, সৌম্য ১/৪৫, তাইজুল ১/৫৬)

 

বাংলাদেশ: ২০৩ (তামিম ৪, ইমরুল ৩২, মুমিনুল ১৩, মাহমুদউল্লাহ ২৮, সাকিব ৮৯*, মুশফিক ১২, সৌম্য ৩, শুভাগত ০, তাইজুল ১৫; ইয়াসিন ৩/৫৮, ওয়াহাব ৩/৭৩, জুনায়েদ ২/২৬, হাফিজ ১/১৩) ও ৬৩/১ (তামিম ৩২, ইমরুল ১৬, মুমিনুল ১৫; ইয়াসির ১/৭)

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.