সংবাদ শিরোনাম
সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «   ভোলায় পুলিশী ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না: ব্যবস্থা নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি  » «   সুনামগঞ্জে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা  » «   জামালগঞ্জে জামায়াতের আমীর দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র জিহাদি বইসহ ২জন আটক-মামলা  » «   সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু  » «   জৈন্তাপুর সীমান্তের ডিবির হাওর এলাকায় ৪৮ বিজিবি’র মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত  » «   ওসমানীনগরে সাংবাদিকের বাড়িতে কর্মরত যুবকের লাশ ডোবা থেকে উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «  

স্ত্রীর সঙ্গে কলহ,তিন মেয়েকে জবাই করল বাবা

সিলেটপোস্টরিপোর্ট:পারিবারিক কলহের জের ধরে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় এক বাবা তার তিন মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চকরিয়ার বদরখালী ইউনিয়নের পূর্ব পুকুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে চকরিয়া থানার ওসি প্রভাস চন্দ্র ধর জানান।হত্যাকাণ্ডের শিকার তিন শিশু হল- দেড় বছরের শারাবন তহুরা, আট বছর বয়সী নূরী জান্নাত শিউলী ও দশ বছরের আয়েশা সিদ্দিকা।তাদের বাবা আব্দুল গণি (৩৮) ঘটনার পর থেকে পলাতক। তিনি পেশায় একজন দিনমজুর বলে জানান চকরিয়ার ওসি।তিনি বলেন, স্ত্রী ফাতেমা বেগমের (৩৫) সঙ্গে গণির প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকত। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্যের বাড়িতে সালিশ বৈঠক বসে। সালিশের শেষ দিকে সবার সামনেই গণি তার স্ত্রীকে পেটানোর হুমকি দেন। পরিস্থিতি দেখে ইউপি সদস্য রাতে ফাতেমাকে ওই এলাকায় তার নানার বাড়িতে গিয়ে থাকার পরামর্শ দেন। এরপর ফাতেমা তার নানার বাড়িতে চলে যান। তবে তার তিন মেয়ে বাবার কাছেই ছিল।এরপর ফাতেমার ভাই আজগর আলী রাত সাড়ে ৩টার দিকে আব্দুল গণির ফোন পান। গণি তাকে বলেন, ফাতেমা যেন বাড়ি গিয়ে তার মেয়েদের দেখে যায়। তার কথায় সন্দেহ হওয়ায় ভোরের দিকে ফাতেমা তার ভাইকে নিয়ে স্বামীর বাড়িতে আসেন এবং ঘরের মধ্যে তিন মেয়েকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে পুলিশ সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে বলে চকরিয়ার ওসি জানান। তিনি বলেন, ঘটনা দেখে মনে হচ্ছে, গণি মেয়েদের জবাই করার পর তাদের মামাকে ফোন করে খবর দেয়। তারপর নিজে পালিয়ে যায়।তাকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে বলে জানান ওসি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.