সংবাদ শিরোনাম
সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «   ভোলায় পুলিশী ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না: ব্যবস্থা নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি  » «   সুনামগঞ্জে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা  » «   জামালগঞ্জে জামায়াতের আমীর দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র জিহাদি বইসহ ২জন আটক-মামলা  » «   সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু  » «   জৈন্তাপুর সীমান্তের ডিবির হাওর এলাকায় ৪৮ বিজিবি’র মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত  » «   ওসমানীনগরে সাংবাদিকের বাড়িতে কর্মরত যুবকের লাশ ডোবা থেকে উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «  

রাজধানী মিরপুরে ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় শিক্ষকের যাবজ্জীবন

jasসিলেটপোস্টরিপোর্ট:রাজধানী মিরপুরের হলিক্রিসেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্লে শ্রেণীর এক ছাত্রী (৫) ধর্ষণের মামলায় ওই স্কুলের আরবি শিক্ষক মো. মিনহাজ উদ্দিনকে (২৫) যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। একইসঙ্গে তাকে দুই লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। এ দুই লাখ টাকার মধ্যে এক লাখ টাকা ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে দিতে আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা ৫ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক তানজীনা ইসমাইল এ রায় দেন।২০১৪ সালের ১১ মার্চ ওই ছাত্রীকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে স্কুলের বাথরুমে নিয়ে ধর্ষণ করেন লম্পট শিক্ষক। এ সময় রক্তক্ষরণ শুরু হলে তিনি পালিয়ে যান। ওই ছাত্রী বাসায় গিয়ে অসুস্থ হয়ে পরে এবং তার মাকে সব খুলে বলে। তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এরপর ওই দিনই ওই ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে লম্পট শিক্ষকের বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় ধর্ষণ ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই দিনই আসামিকে আটক করে পুলিশ।ঘটনাটি তদন্ত করে মিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমান গত বছরের ২৬ জুন ওই শিক্ষককে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। একই বছরের ২৯ অক্টোবর আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন ট্যাইব্যুনাল।ভিকটিম নিজেই আদালতে সাক্ষ্য দেন। এছাড়া ভিকটিমের মা, বাবা, মামা, নানীসহ ৯ জন সাক্ষ্য দেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আলী আসগর তপন।এছাড়া বাদিকে আইনী সহায়তা দেন বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির পক্ষে অ্যাডভোকেট সালমা আলী, ফাহমিদা আক্তার রিংকী ও ফারহানা রহমান লুনা।রায় পড়ার সময় আসামি মিনহাজ উদ্দিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এরপর তাকে আবার কারাগারে পাঠানো হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.