সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী যারা  » «   শিক্ষার্থীরা উচ্চ শিক্ষা অর্জন করতে পারলে তাদের ভবিষ্যৎ উজ্জল হবে-প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান  » «   নবীগঞ্জে বাস- সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১-আহত ৫  » «   নবীগঞ্জে আগুনে পুড়ে ১টি বসত ঘর ছাই! প্রায় ২ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি  » «   সিলেটে হিটস্ট্রোকে শফিকুল ইসলাম নামে এক পথচারি মারা গেছেন  » «   সাংবাদিকের উপর হামলা: চেয়ারম্যান কারাগারে  » «   সিলেটে এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার ৮৩ দশমিক ৮৮ শতাংশ  » «   সুনামগঞ্জের ডলুরায় ব্যবসায়ীর উপর হামলার ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তিন জন  » «   তিন দিনের সফরে সিলেট আসছেন প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «   সিসিকের হোল্ডিং ট্যাক্স সাধারণ মানুষের উপর ‘মরার উপর খাড়ার ঘা’-সিলেট জেলা বিএনপির   » «   প্রেমের টানে চলে আসা দুই সন্তানের জননী খাসিয়া নারীকে ভারতে ফেরত  » «   সিলেটে বিএনপির আরো ১৫ নেতা-নেত্রী বহিস্কার  » «   হুট করেই ছুটি বাতিল করায় পক্ষে বিপক্ষে শনিবারের ক্লাস নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।  » «   মহান মে দিবসে সিলেট সদর উপজেলা বিল্ডিং নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের র‌্যালি  » «   উত্তরপূর্ব পত্রিকার কম্পিউটার ইনচার্জে রলাশ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের  » «  

সিলেট বিএনপিতে পূরণ হয়নি ইলিয়াসের শূণ্যতা:নিখোঁজের ৪৩ মাস

14সিলেটপোস্টরিপোর্ট:সিলেট বিএনপি আর আগের অবস্থানে নেই। নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর সাথেও যেনো হারিয়ে গেছে সিলেটে বিএনপির অবস্থান। একসময় সিলেটের রাজপথে জোরালো অবস্থান ছিল বিএনপির।বিএনপির জোরালো অবস্থানের কাছে অন্যদলগুলো যেনো অসহায় ছিল। বিএনপিকে সমীহ করেই রাজপথে নামতে হতো অন্যদলগুলোকে। এখন সিলেটে খেই হারিয়ে ফেলেছে দেশের অন্যতম এই রাজনৈতিক সংগঠনটি। আর এসবের মূলে রয়েছেন নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলী। তার শূণ্যতার কারণেই সিলেটের রাজপথে দলটির অবস্থান নেমে গেছে নিচের সারিতে।সাবেক সংসদ সদস্য ইলিয়াস আলী ‘নিখোঁজ’র ৩ বছর ৭ মাস বা ৪৩ মাস পূর্ণ হচ্ছে আজ মঙ্গলবার। এই সাড়ে তিনবছর ইলিয়াসের সাথে ‘নিখোঁজ’ ছিল সিলেট বিএনপির প্রাণশক্তিও। ইলিয়াসের শূণ্যতায় ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি দলটি। উল্টো দিন দিন দলে বেড়েছে মতপার্থক্য, রেষারেষি।ইলিয়াসহীন জেলা ও মহানগর শাখার নতুন কমিটি ঘোষণা করেও নেতাকর্মীদের রাজপথে সক্রিয় করতে পারেনি কেন্দ্রিয় কমিটি। সিলেটে যেন কোনভাবেই সম্ভব হচ্ছে না ইলিয়াস আলীর নেতৃত্বের শূণ্যতা পূরণ।২০০৯ সালে বিএনপির কেন্দ্রীয় কাউন্সিলে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন এম. ইলিয়াস আলী। দায়িত্ব পান সিলেট বিভাগে দল পুনর্গঠনের। তার নেতৃত্বে সিলেটে ঐক্যবদ্ধভাবে শুরু হয় সরকার বিরোধী আন্দোলন। টিপাইমুখবাঁধ বিরোধী আন্দোলন নিয়ে তিনি ঘুরে বেড়ান পুরো সিলেট বিভাগ। পাশাপাশি সীমান্তে ভারতীয় আগ্রাসনের বিরুদ্ধেও তিনি সিলেটে গড়ে তোলেন আন্দোলন। করেন লংমার্চও।সিলেটে ইলিয়াস আলীর নেতৃত্বে যখন সরকার বিরোধী আন্দোলন তুঙে তখন ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল ঢাকা থেকে গাড়ি চালক আনসার আলীসহ নিখোঁজ হন তিনি। এরপর ইলিয়াস আলীর সন্ধান দাবিতে সিলেটে কয়েকদিন চলে আন্দোলন। তবে ধীরে ধীরে এই আন্দোলনে পড়তে থাকে ভাটা।একসময় দলীয় কোন্দলে জর্জরিত হয়ে রাজপথে নামার শক্তিও হারিয়ে ফেলে বিএনপি। ইলিয়াস আলী নিখোঁজের পর সিলেট বিএনপিকে গোছানোর দায়িত্ব পান একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা। কিন্তু কেউই ইলিয়াসের শূণ্যতা পূরণ করতে পারেননি। উল্টো সৃষ্টি হয় নতুন নতুন বলয়।৫ জানুয়ারির নির্বাচন পরবর্তী আন্দোলন-সংগ্রামেও সিলেট বিএনপিকে মাঠে ঐক্যবদ্ধভাবে দেখা যায়নি। পাশাপাশি সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির শীর্ষ নেতারা বেশিরভাগই ছিলেন আত্মগোপনে।আন্দোলনের শুরুতে তৃণমূল নেতাকর্মীরা রাজপথে সক্রিয় থাকলেও নেতাদের পিছুটানের কারণে একপর্যায়ে তারাও নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েন। আন্দোলন করতে গিয়ে রাজপথের ত্যাগী নেতাকর্মীরা ইলিয়াসের মতো ইস্পাত কঠিন নেতৃত্বের অভাববোধ করেন।এ ব্যাপারে সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আবদুল গফ্ফার বলেন- চলমান আন্দোলন কর্মসূচিতে নেতাকর্মীরা ইলিয়াস আলীর অভাব অনুভব করছেন। তার বিচক্ষণ নেতৃত্ব সবসময় নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত রাখত। তার এ শূণ্যতা সিলেটের অন্য কোন নেতা পূরণ করতে পারেননি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.