সংবাদ শিরোনাম
নবীগঞ্জের রুস্তমপুর টোলপ্লাজা এলাকায় থেকে ৩ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের হাতে গ্রেফতার  » «   ছাতকে বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে কন্ঠশিল্পী পাগল হাসান নিহত  » «   সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে মায়ের সম্পত্তি নিয়ে ছোটভাইয়ের হাতে বড়ভাই নিহত,আটক-২  » «   দিরাইয়ে বজ্রপাতে দুইজন কৃষকের মৃত্যু  » «   পরিবেশ অধিদপ্তরের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহবান  » «   সিলেট জেলা ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা সভা  » «   ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র সভাপতি শেখ লুৎফুর  » «   পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসীর মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক ও সমন্বয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ  » «   মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   সুনামগঞ্জে কালবৈশাখীর ঝড়ে ৭শতাধিক কাচা ঘরবাড়ি,২ শতাধিক দোকান লন্ডভন্ড  » «   হবিগঞ্জে চাল্যকর ছোবহান হত্যা মামলার ৫ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯  » «   নবীগঞ্জে ৬ বছরে শিশুকে চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ! ধর্ষনকারী আনহারকে আটক   » «   ফ্যাসিস্ট ডামি সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট জেলার উদ্যোগে ইফতার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল  » «   সিলেটে পারিবারিক কলহের জেরে ছেলের হাতে বাবা খুন  » «  

পল্লবীতে প্রকৌশলীর স্ত্রী ও মামা খুন, ব্যবসায়ি অংশিদারসহ আটক দুইজন

lll999সিলেটপোস্ট রিপোর্ট : রাজধানীর পল্লবী একটি ফ্ল্যাট বাড়িতে দিন দুপুরে খুন হয়েছেন ডেসকোর প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী ও মামা। নিহতরা হলেন সুইটি আক্তার (২৪) ও আমিনুল ইসলাম (৫০) ২০ নম্বর রোডের ৯ নম্বর  ‘ ক্রিস্টাল ডি আমিন’ নামের বাড়ির পঞ্চম তলায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের স্বজনদের ধারনা করছে, চাঁদাবাজরা এ ঘটনা ঘটাতে পারে। পুলিশ জিজ্ঞাসবাদের জন্য ওই বাড়ির নিরাপত্তকর্মী আব্দুল খালেক  ও জাহিদুল ইসলামের ব্যবসায়িক অংশিদার শাহিনকে  জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। জাহিদুল ইসলাম রূপনগরে ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরন কোম্পানির লিমিটেডের (ডেসকো) উপ-সহকারী প্রকৌশলী। তাদের গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের কাজীপাড়ায়।

নিহত সুইটির স্বামী জাহিদুল জানান,  প্রতিদিন দুপুরে তিনি ভাত খেতে বাসায় আসেন। তবে গতকাল তার আগেই বাসার দারেয়ান তাকে ফোন করে ঘটনার কথা জানায়। এরপর তিনি দ্রুত বাসা এসে দেখেন  তার  মামা ও স্ত্রীর মরদেহ।

ডিএমপি মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার নিশারুল আরিফ বলেন, জাহিদুল ইসলাম চাকুরি পাশাপাশি ট্রান্সফমার ব্যবসা করতেন। তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম ইন্ডিপেনডেন্ট পাওয়ার। তবে ঐ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ছিলেন জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী নিহত সুইটি আক্তার। ধারনা করা হচ্ছে ঐ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত কোন বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকান্ড সংগঠিত হতে পারে।

জাহিদের বন্ধু সুমন জানান, ঘটনার সময় বাসা ছিলেন জাহিদের স্ত্রী , মামা ও তাদের এক মাত্র ছেলে পাঁচ বছরের সাদ। ঘটনা সম্পর্কে তিনি জানান, গতকাল মোটর সাইকেল যোগে দুই যুবক বাড়ির গেটে আসে। তারা আত্মীয় পরিচয় ভেতরে ঢোকে। কলিং বেল চাপলে দরজা খুলে দেয় সুইটি। আর দরজা খোলার সঙ্গে যুবকরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কোপাতে থাকে। তার চিৎকারে আমিনুল ইসলাম এগিয়ে আসলে তাকে একই ভাবে কোপাতে থাকে। ঘটনাস্থলে তারা মারা যান। এ দিকে ঘটনার সময়  ভয়ে সাদ বাথরুমে লুকিয়ে পড়ে।

পল্লবী জোনের সহকারী কমিশনার কামাল হোসেন বলেন,   বাড়াটি জাহিদুল ইসলামের। তার মামা  আমিনুল ইসলাম সেখানে বেড়াতে এসেছিলেন।

জাহিদুল ইসলামের বন্ধু সুমন বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে সন্ত্রাসীরা জাহিদুল ইসলামের কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল। এ নিয়ে চাঁদাবাজরা জাহিদের পরিবারকে কয়েক দফায় হুমকি দিয়েছিল। ধারনা করা হচেছ চাঁদা না দেয়ায় সন্ত্রাসীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।  হত্যাকান্ডের পাওয়ার পরপরই র‌্যাব-পুলিশ, ডিবি ও সিআইডির কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন। সিআইডির একটি টিম আলামত সংগ্রহ করেছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.