সংবাদ শিরোনাম
সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «   ভোলায় পুলিশী ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না: ব্যবস্থা নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি  » «   সুনামগঞ্জে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা  » «   জামালগঞ্জে জামায়াতের আমীর দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র জিহাদি বইসহ ২জন আটক-মামলা  » «   সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু  » «   জৈন্তাপুর সীমান্তের ডিবির হাওর এলাকায় ৪৮ বিজিবি’র মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত  » «   ওসমানীনগরে সাংবাদিকের বাড়িতে কর্মরত যুবকের লাশ ডোবা থেকে উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «  

পল্লবীতে প্রকৌশলীর স্ত্রী ও মামা খুন, ব্যবসায়ি অংশিদারসহ আটক দুইজন

lll999সিলেটপোস্ট রিপোর্ট : রাজধানীর পল্লবী একটি ফ্ল্যাট বাড়িতে দিন দুপুরে খুন হয়েছেন ডেসকোর প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী ও মামা। নিহতরা হলেন সুইটি আক্তার (২৪) ও আমিনুল ইসলাম (৫০) ২০ নম্বর রোডের ৯ নম্বর  ‘ ক্রিস্টাল ডি আমিন’ নামের বাড়ির পঞ্চম তলায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের স্বজনদের ধারনা করছে, চাঁদাবাজরা এ ঘটনা ঘটাতে পারে। পুলিশ জিজ্ঞাসবাদের জন্য ওই বাড়ির নিরাপত্তকর্মী আব্দুল খালেক  ও জাহিদুল ইসলামের ব্যবসায়িক অংশিদার শাহিনকে  জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। জাহিদুল ইসলাম রূপনগরে ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরন কোম্পানির লিমিটেডের (ডেসকো) উপ-সহকারী প্রকৌশলী। তাদের গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের কাজীপাড়ায়।

নিহত সুইটির স্বামী জাহিদুল জানান,  প্রতিদিন দুপুরে তিনি ভাত খেতে বাসায় আসেন। তবে গতকাল তার আগেই বাসার দারেয়ান তাকে ফোন করে ঘটনার কথা জানায়। এরপর তিনি দ্রুত বাসা এসে দেখেন  তার  মামা ও স্ত্রীর মরদেহ।

ডিএমপি মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার নিশারুল আরিফ বলেন, জাহিদুল ইসলাম চাকুরি পাশাপাশি ট্রান্সফমার ব্যবসা করতেন। তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম ইন্ডিপেনডেন্ট পাওয়ার। তবে ঐ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ছিলেন জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী নিহত সুইটি আক্তার। ধারনা করা হচ্ছে ঐ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত কোন বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকান্ড সংগঠিত হতে পারে।

জাহিদের বন্ধু সুমন জানান, ঘটনার সময় বাসা ছিলেন জাহিদের স্ত্রী , মামা ও তাদের এক মাত্র ছেলে পাঁচ বছরের সাদ। ঘটনা সম্পর্কে তিনি জানান, গতকাল মোটর সাইকেল যোগে দুই যুবক বাড়ির গেটে আসে। তারা আত্মীয় পরিচয় ভেতরে ঢোকে। কলিং বেল চাপলে দরজা খুলে দেয় সুইটি। আর দরজা খোলার সঙ্গে যুবকরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কোপাতে থাকে। তার চিৎকারে আমিনুল ইসলাম এগিয়ে আসলে তাকে একই ভাবে কোপাতে থাকে। ঘটনাস্থলে তারা মারা যান। এ দিকে ঘটনার সময়  ভয়ে সাদ বাথরুমে লুকিয়ে পড়ে।

পল্লবী জোনের সহকারী কমিশনার কামাল হোসেন বলেন,   বাড়াটি জাহিদুল ইসলামের। তার মামা  আমিনুল ইসলাম সেখানে বেড়াতে এসেছিলেন।

জাহিদুল ইসলামের বন্ধু সুমন বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে সন্ত্রাসীরা জাহিদুল ইসলামের কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল। এ নিয়ে চাঁদাবাজরা জাহিদের পরিবারকে কয়েক দফায় হুমকি দিয়েছিল। ধারনা করা হচেছ চাঁদা না দেয়ায় সন্ত্রাসীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।  হত্যাকান্ডের পাওয়ার পরপরই র‌্যাব-পুলিশ, ডিবি ও সিআইডির কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন। সিআইডির একটি টিম আলামত সংগ্রহ করেছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.