সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে মাদক সেবনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ জনের সাজা  » «   বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «   দোয়ারাবাজারে কেন্দ্র ফি’র নামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়  » «   তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহানা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি ভাতা দেওয়ার নামে প্রতারণা, প্রতারককে জরিমানা  » «   মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «  

সিটি ইয়াবা সার্ভিস’চলছে দামী গাড়ি দিয়ে

carসিলেটপোষ্টরিপোর্ট:মাদক সেবীদের ‘ডোর টু ডোর’ সার্ভিস দিতে প্রতিনিয়ত নিত্যনতুন ‘বিজনেস প্ল্যান’ করতে হচ্ছে মাদক ব্যবসায়ীদের। এবার তারই অংশ হিসেবে মাদক ব্যবসায়ীরা রাজধানীতে শুরু করেছেন ‘সিটি ইয়াবা সার্ভিস’। এজন্য তারা ব্যবহার করছেন বিলাস বহুল প্রাইভেট কার। নির্দিষ্ট নম্বরে শুধু একটি ফোন করলেই গাড়ি পৌঁছে যাবে ক্রেতার দোরগড়ায়। গাড়ির ভেতর এসির ঠান্ডা বাতাসে নগদ টাকায় হাতবদল হবে ইয়াবা।শুধু খুচরা নয় পাইকারীভাবেও ইয়াবা বেচাকেনা করছে চক্রটি। তবে রাজধানীতে এরকম কতগুলো ‘সিটি ইয়াবা সার্ভিস’ আছে তা জানতে পারেননি সংশ্লিষ্টরা।রাজধানীতে এই সার্ভিস শুরু করেন টেকনাফের ইয়াবা ব্যবসায়ী হাকিম মাঝি ও হোসেন। তাদের দেখাদেখি পরে অন্য অনেক মাদক ব্যবসায়ীও এভাবে মাদক বিক্রি শুর করেন। তারা এটির নাম দিয়েছেন ‘সিটি ইয়াবা সার্ভিস’।রাজধানীতে হাকিম মাঝি ও হোসেনের অন্যতম ‘এজেন্ট’ রুহুল আমিন। গত সোমবার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের এক অভিযানে উত্তরা থেকে তাকে আটক করেন অধিদপ্তরের ডেমরা সার্কেলের পরিদর্শক ফজলু হক খান। এসময় তার সাথে সিটি সার্ভিসের গাড়ি চালক হাফিজ এবং মোক্তার নামে একজনকে আটক করে। তাদের কাছ থেকে টয়োটা এলিয়ন ব্রান্ডের একটি গাড়িও উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত গাড়িটি টেকনাফের জনৈক জাফরের নামে রেজিষ্ট্রেশনকৃত।আটকের পর রুহুল আমিন অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের জানান, টেকনাফ থেকে হাকিম মাঝি ও হোসেন নামে দুই ব্যক্তি তার কাছে ইয়াবা সরবরাহ করেন। রুহুল আরা জানান, শুধু ঢাকা নয়, রাজধানীর বাইরে থেকেও ‘পার্টি’ এসে তাদের কাছ থেকে ইয়াবা নিয়ে যায়। তবে তারা কখনো রাজধানীর বাইরে যান না। রাজধানীর ভেতরে প্রাইভেট কারে করে ইয়াবা সরবরাহ করেন। তবে ঢাকার বাইরে থেকে ‘পার্টি’ আসলে তাদের ‘লোক’ রাজধানীর প্রবেশ মুখ থেকে ‘পার্টি’কে রিসিভ করে উত্তরায় নিয়ে আসেন। পরে গাড়িতে বসেই ইয়াবা ও টাকার লেনদেন করেন। মাদক কর্মকর্তাদের মতে, এই চক্রটি মূলত উত্তরা পূর্ব থানার আশপাশেই বেশী তৎপর। এ ক্ষেত্রে থানা পুলিশের যোগসাজশ থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন তারা। এদিকে মাদক গায়েন্দা সুত্রে জানা যায়, ইয়াবা, ফেন্সিডিলসহ অন্যন্য মাদকও রাজধানীতে এভাবে মোটর সাইকেল, প্রাইভেট কার, মিনি ট্রাকে করে সরবরাহ করা হচ্ছে মাদকসেবীদের কাছে। মূলত পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতেই মাদক ব্যবসায়ীরা মাদক সরবরাহের কাজে এখন দামী গাড়ি ব্যবহার করছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.