সংবাদ শিরোনাম
আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ চলাকালে সিয়াম নামে এক তরুণ নিহত  » «   কোটা বৈষম্য বিরোধী আন্দোলনকারীদের পক্ষে বিক্ষোভের ঘোষণা হেফাজতে ইসলামের  » «   আগামীকাল সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’কর্মসূচি ঘোষণা  » «   দোয়ারাবাজারে প্রকাশ্যে চলছে টিলা কাটার মহোৎসব! নিরব প্রশাসন  » «   মাদকের ভয়ালগ্রাস থেকে আমাদের সন্তানদের বাচাতে হবে- বিভাগীয় কমিশনার আহমদ ছিদ্দীকী  » «   আরিফ হত্যা মামলায় ৩৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিপু কারাগারে  » «   ধর্মপাশার মুগরাইন হাওরে গোসল করতে নেমে ডুবে শাশুড়ি ও তার অন্তঃসত্ত্বা পুত্রবধূর মৃত্য  » «   তৃতীয় দফা বন্যার মুখোমুখি সুনামগঞ্জের হাওরপাড়ের লাখ লাখ মানুষজন  » «   বন্যায়ও থেমে নেই ভারত থেকে অবৈধভাবে আসা চিনির চোরাচালান  » «   সিলেটে নতুন পুলিশ সুপার এর যোগদান  » «   র‌্যাব সদস্যরা দেশের যেকোন সংকটময় মূহুূর্তে সব সময়ই জনগনের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে -র‌্যাব মহাপরিচালক  » «   সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার জন্য একজন গানম্যান নিয়োগ পেলেন ব্যারিস্টার সুমন  » «   গুজব আতঙ্কে গোলাপগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ  » «   সুনামগঞ্জে শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত  » «   কৃষকরা এ দেশের প্রাণ: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «  

‘গণপিটুনি’তে দুই যুবকের মৃত্যু : পুলিশের সম্পৃক্ততার অভিযোগ

67সিলেট পোস্ট রিপোর্ট:  যশোরে গণপিটুনিতে দুই যুবক নিহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশের সম্পৃক্ততার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার যশোর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে এ অভিযোগ উত্থাপিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহত ইসমাইল শেখের মামা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির পাঠাগার সম্পাদক দেলোয়ার রহমান দীপু।

 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, রোববার রাতে যশোর-মাগুরা সড়কের হুদার মোড় এলাকায় যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের কম্পিউটার বিভাগের ৫ম পর্বের ছাত্র ইসমাইল ও ওয়েল্ডিং ব্যবসায়ী আল-আমিনকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। অথচ পুলিশ ওইদিন দাবি করে, বরুণ তরফদার নামে এক লোকের মোটরসাইকেল ছিনতাই করতে গিয়ে  গণপিটুনিতে ওই দুই যুবক নিহত হন।

সংবাদ সম্মেলনে দেলোয়ার বলেন, ‘ছিনতাইয়ের ঘটনাটি পুরোপুরি সাজানো। এ ব্যাপারে স্থানীয় লোকজন কিছুই জানে না।’

তিনি দাবি করেন, যার মোটরসাইকেল ছিনতাই করা হচ্ছিল বলে পুলিশ দাবি করছে, সেই বরুণ তরফদারের এক আত্মীয়ার সঙ্গে নিহত ইসমাইল অথবা আল-আমিনের  প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে তারা জানতে পেরেছেন। এরই জেরে তাদের দুজনকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। তাদের শরীরে গণপিটুনির কোন চিহ্ন নেই এবং গলার ওপরের অংশে ধারালো অস্ত্রের অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও এ সময় জানান দেলোয়ার। তিনি এ হত্যাকান্ডের বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেন।

 

সংবাদ সম্মেলনে নিহত ইসমাইলের বাবা বেলাল শেখ, মা রেহানা বেলাল, বড় মামা মঞ্জুরুল আলম, নিহত আল-আমিনের বড় ভাই রবিউল ইসলাম, চাচা ইনসার আলীসহ এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।

 

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.