সংবাদ শিরোনাম
মাস খানেক পরই বিদ্যুৎ ঘাটতিসহ সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে-পরিকল্পনা মন্ত্রী মান্নান  » «   ওসমানীনগরে পরিমাপে পেট্রোল কম দেয়ায় সুপ্রীম ও আবীর ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা  » «   জগন্নাথপুরে এক কৃষক হত্যা মামলায় ১ জনের আমৃত্যু ও ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «   ভোলায় পুলিশী ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না: ব্যবস্থা নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি  » «   সুনামগঞ্জে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা  » «   জামালগঞ্জে জামায়াতের আমীর দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র জিহাদি বইসহ ২জন আটক-মামলা  » «   সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু  » «  

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস: ঝুঁকি বাড়ছে স্বাধীন গণমাধ্যম ব্যবস্থায়

04সিলেটপোস্ট রিপোর্ট : বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস আজ। সাংবাদিকতার স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠার মৌলিক নীতিমালা অনুসরণ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা মূল্যায়নের মাপকাঠি পরিমাপে বাংলাদেশেও পালিত হয় দিবসটি। বিভিন্ন সময় জরুরি ক্ষমতা আইন, বিশেষ ক্ষমতা আইনসহ নানা বিধি-নিষেধ জারি হলেও থেমে থাকেনি গণমাধ্যমের বিকাশ। তবে, স্বাধীন গণমাধ্যম ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।
গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার অন্যতম স্তম্ভ যে গণমাধ্যম তা প্রমাণিত হয়েছে দেশ স্বাধীন হওয়ার পরপরই। এসময় একের পর এক সংবাদপত্রের আত্মপ্রকাশ ঘটে। থেমে থাকেনি ইলেকট্রনিক মিডিয়াও। তবে, যুগের সাথে তাল মিলিয়ে গণমাধ্যমের পরিবর্তন এলেও রাষ্ট্রের চতুর্থ এ স্তম্ভের স্বাধীনতায় আঘাত এসেছে বারবার।
গণমাধ্যমের স্বাধীনতা পর্যবেক্ষণকারী আন্তর্জাতিক সংগঠন রিপোর্টাস উইদাউট বর্ডাসের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে ১শ’ ৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪৬ তম।
এদিকে আইন ও সালিশ কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত দেশে সাংবাদিক হয়রানির ঘটনা ঘটেছে ১শ’ ৬টি। এর মধ্যে গণমাধ্যমকর্মীদের নির্যাতনের ঘটনা ১১টি, হত্যার হুমকি ৯টি, প্রকাশিত সংবাদের জন্য মামলা ৩টি, সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে ১১টি।
গণমাধ্যমকর্মীদের উপর সরকারদলীয় সমর্থকদের হামলার ঘটনা রয়েছে ১৭টি, অপরদিকে বিএনপি দলীয় সমর্থকদের হামলার ঘটনা রয়েছে ২টি, বোমা বিস্ফোরণে আহত আছেন আরো ২জন। এছাড়া মেয়র প্রার্থীদের হুমকি ছিল ৩০টি।
সাংবাদিক নেতা মনজুরুল আহসান বুলবুল বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে সেন্সরশিপ, দীর্ঘদিন ধরে বিচারহীনতার সংস্কৃতি। দীর্ঘদিন ধরে নানা হুমকির সংস্কৃতি। এই সংস্কৃতির কারণে বাংলাদেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা বা মত প্রকাশের স্বাধীনতা একটা প্রশ্নবিদ্ধ জায়গায় থাকে।’
আরেক সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী বলেন, ‘একটি নির্ভেজাল গণতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা যে পেশাদারিত্ব দায়িত্ব পালন করি এইটা করতে গিয়ে যাদের স্বার্থে আঘাত আসে তারাই আমাদের সহ্য করতে পারে না। আর সহ্য করতে পারে না বলেই কখনো গণমাধ্যম অন্ধকার হয়। কখনো গ্রেফতার করা হয়।’
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতার পাশাপাশি একইসাথে সাংবাদিকদের দায়িত্বশীলতার প্রয়োজন।
গণমাধ্যম বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ড. আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘গণতন্ত্রকে পরিশীলিত করার জন্যই গণমাধ্যমের স্বাধীনতা অপরিহার্য। গণমাধ্যম যে স্বাধীনতা ভোগ করছে সেই স্বাধীনতাকে কোনোভাবে বাধাগ্রস্ত করার পক্ষে আমরা নই। কিন্তু গণমাধ্যম নিজের স্বার্থেই স্বাধীনতার সাথে সাথে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেবে এটাও আমরা আশা করি।’
গণমাধ্যমের অবাধ স্বাধীনতার জন্য সংবাদকর্মীদের পেশাদারিত্বের পাশাপাশি আরো প্রশিক্ষিত হওয়া প্রয়োজন বলেও মনে করেন এই গণমাধ্যম বিশেষজ্ঞ।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.